Digital Marketing

১. ইমেইল মার্কেটিং।
২. ফেইসবুক মার্কেটিং।
৩. এস এম এস মার্কেটিং।


ইমেইল মার্কেটিং সম্পর্কে কিছু কথা

খুব সংক্ষিপ্তভাবে যদি “ইমেইল মার্কেটিং” সম্পর্কে বলতে হয়, তাহলে বলতে হবে ইমেইল আদান-প্রদান এর মাধ্যমে কোন পণ্য বা সেবার বিপণন ব্যবস্থা । তারমানে, ইমেইল মার্কেটিং বা সরাসরি বিপণন ব্যবস্থা হল মার্কেটিং-এর এমন একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে সরাসরি কাস্টমারের ইমেইলে কোন পণ্য বা সেবার বিবরণসহ পণ্য সম্পর্কিত অন্যান্য তথ্যাবলী প্রেরণ করা । যার ফলে কোন কাস্টমার ওই পণ্য বা সেবা সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণাগুলো ইমেইলের ইনবক্সেই পেয়ে যান এবং তিনি পণ্যটি কিনতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন।

“ইমেইল মার্কেটিং” ব্যবহার করে প্রতিদিন দেশ-বিদেশের হাজার হাজার কোম্পানি তাদের পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন প্রচার করছে। কোম্পানির একদিকে যেমন বাড়ছে বিক্রয়ের পরিমাণ, তেমনি সম্প্রসারিত হচ্ছে তাদের সুনাম ও খ্যাতি।


ফেসবুক মার্কেটিং কি?

ফেইসবুক নিঃসন্দেহে সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মের সাথে উপলব্ধ
এটির সাথে যুক্ত অনেক সুবিধা। এটি প্রাথমিকভাবে একটি সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট, তবে এটি একটি ব্যবসা প্রচার এবং বিজ্ঞাপনের জন্য একটি সহজ সরঞ্জাম হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। আমরা একটি ব্র্যান্ড প্রচার, একটি কোম্পানীর বাজার, বা একটি সেবা বা একটি পণ্য সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি ফেসবুক ব্যবহার করতে পারেন। বিপণনের এই ফর্মের সাথে সফলতার জন্য একটি ফ্যান পেজ এবং কয়েকটি বন্ধু বেশি প্রয়োজন। কার্যকরভাবে ব্যবহার করা হলে, ফেসবুক মার্কেটিং একটি বিরাট সুবিধা এবং ফলাফল দিয়ে একটি ব্যবসা প্রদান করতে পারে। ফেসবুক মার্কেটিং ব্যবসায়ীরা তাদের ব্র্যান্ড সচেতনতা ব্যাপকভাবে উন্নত করতে এবং বৃহত্তর দর্শকদের কাছে পৌঁছাতে সক্ষম করতে পারে।